দে’হর’ক্ষীকেই দে’হ বিলিয়ে দিলেন তাসলিমা নাসরিন!

বিতর্কিত বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিনের দে’হরক্ষী নিজের মাথায় গু’লি করে আ’ত্মহ’ত্যার চেষ্টা করেছিলো বহুদিন আগে।পুলিশ জানিয়েছে, তার ডান চোখের ওপরে গু’লি লেগেছিলো।২০১৫ সালের ২৪ আগস্ট সন্ধ্যার এই ঘটনাটি সেসময় টাইমস অব ইন্ডিয়া ও বার্তা সংস্থা পিটিআইসহ প্রায় সবগুলো গণমাধ্যমে প্রকাশ পায়। তসলিমা নাসরিনের নিরাপত্তায় ওই দে’হরক্ষীকে নিয়োগ করেছিলো ভারত সরকার।

ভারতের সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) ওই জওয়ান কেন আ’ত্মহ’ত্যার চেষ্টা করেছে তা নিয়ে তদন্ত করে দেশটির পুলিশ। এমনকি সুমিত ভার্গিজ নামের ওই কন্সটেবলের মোবাইল ফোনের রেকর্ড নিয়েও করা হয় ব্যাপক তদন্ত।ঘটনার বহুদিন পর সুমিতের মোবাইল ফোনে তসলিমার দেয়া কয়েকটি ক্ষুদেবার্তা আপত্তিকর বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সন্দেহ করেছিল বি’ষাদগ্রস্থ হওয়ার কারণে সে আত্মহ’ত্যার চেষ্টা করে থাকতে পারে।সেদিন গু’লির শব্দ শুনতে পেয়ে তসলিমা নাসরিনের গৃহকর্মীরা সুমিতের ঘরে যায়।পরে তারা ঘটনাটি কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে। সিআরপিএফ জওয়ানকে দ্রুত এআইআইএমএস ট্রমা সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরো পড়ুন মুক্তি পেল শাহরুখকন্যা সুহানার প্রথম চলচ্চিত্র গত সেপ্টেম্বরে মুক্তি পেয়েছিল সুপারস্টার শাহরুখ খানের মেয়ে সুহানা খানের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘দ্য গ্রে পার্ট অব ব্লু’র টিজার। অন্তর্জালে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। বি-টাউনের সবাই অপেক্ষা করছিল, কখন মুক্তি পাবে পুরো ছবি। অবশেষে ছবিটি মুক্তি পেল।স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিটির পরিচালক থিওডোর গিমেনো। ইউটিউবে ছবিটি মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

এক বছর এই ছবির পেছনে ব্যয় করেছেন। কাস্ট, ক্রু ও বন্ধুদের পেয়ে তিনি সত্যিই আনন্দিত। তাঁদের সাহায্য ছাড়া ছবিটি নির্মাণ সম্ভব হতো না। তাঁর আশা, দর্শকও উপভোগ করবেন ছবিটি।তারকা-সন্তানদের প্রতি এমনিতেই ভক্তদের আগ্রহ অশেষ। আর তিনি যদি হন বলিউড বাদশাহর সন্তান, অনুমান করাই যায়। অন্তর্জাল দুনিয়ায় অসংখ্য অনুরাগী সুহানা খানের।

নিঃসন্দেহে অন্তর্জাল দুনিয়ায় অন্যতম জনপ্রিয় মুখ তিনি।বি-টাউন অনুরাগী মাত্রই জানেন, সুপারস্টার বাবা শাহরুখ খানের পদাঙ্ক অনুসরণ করে বড়পর্দায় ঝড় তুলতে চান সুহানা খান। আর এই স্টার কিডকে বরণ করে নিতে অধীর অপেক্ষায় ভক্তকুল। অবশ্য সুহানা এরই মধ্যে এগিয়েছেন অনেক দূর। স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে তো অভিষেক হলো, এবার পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবিতে সুহানাকে দেখার অপেক্ষায় ভক্তরা।

Related posts

Leave a Comment