হোটেলের মালিকের কাছে প্রতি’রা’ত্রে ধ’র্ষণের শি’কার হতেন পাপিয়া

রাজনীতির আ’ড়ালে অ’স্ত্র, মা’দক ও দে’হব্যবসার সঙ্গে জ’ড়িত নরসিংদীর ব’হিস্কৃত যুব মহিলা লীগের নেত্রী শামীমা নূর পা’পিয়ার ফোনের ভিডিও ডিলিট হয়েছে কিনা তা জানার চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া পাপিয়াকে যারা আ’শ্রয়-প্রশ্রয় দিতেন, তাদের অ’নেকের সম্পর্কে গোয়েন্দা সংস্থা জানতে পেরেছে। তাদের মধ্যে

কয়েকজনকে শিগগির জি’জ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।একজন দায়ি’ত্বশীল ক’র্মক’র্তা জানান, মোবাইল ফোনসেটের ’চ্যাটিং লিস্টে অনেকের নাম পাওয়া যায়। গু’রু’ত্বপূর্ণ কোনো চ্যাটিং কিংবা ভিডিও ডিলিট করা হয়েছে কিনা, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার মোবাইল ফোনসহ অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স ডি’ভাইসের ফরেনসিক পরীক্ষাও করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, পাপিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল- এমন অনেকের নামের তালিকা বিভিন্ন সামাজিক যো’গাযোগমা’ধ্যমে দেখা যাচ্ছে। কে বা কারা কী উদ্দেশ্যে এ তালিকা সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করছে, তারও খোঁজ চলছে। এখন পর্যন্ত তালি’কাভুক্ত ব্যক্তিদের সঙ্গে পাপিয়ার কোনো সুনির্দিষ্ট ঘনিষ্ঠতার তথ্য পাওয়া

যায়নি।সূত্র জানায়, পাপিয়ার ঘনিষ্ঠদের খুঁজতে গুলশানের একটি পাঁচতারকা হোটেলের সিসিটিভির ক্যামেরা ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এ ছাড়া পাপিয়ার কাছে কারা যাওয়া-আসা করতেন, তা জানতে এরই মধ্যে ওই হোটেলের একাধিক ব্যক্তিকে জি’জ্ঞাসাবাদ করেছেন গোয়েন্দারা।

সূত্র আরও জানায়, পাপিয়া শুধু পাঁচতারকা হোটেলে নন, আরও অনেক জায়গায় বিভিন্ন পার্টি দিতেন। সেই পার্টিতে অনেক ভি’আইপির আসা-যাওয়া ছিল। ওয়েস্টিনের বারে নিয়মিত বিশেষ পার্টির আ’য়োজন করতেন তিনি। ফার্মগেট ও নরসিংদীর বাসায় ডিজে ও ডিসকো পার্টির আয়োজন ছিল অনেকটা নিয়মিত।যারা পাপিয়াকে আশ্রয়-প্রশ্রয়

দিতেন, তাদের অনেকের সম্পর্কে গোয়েন্দা সংস্থা জানতে পেরেছে। তাদের মধ্যে কয়েকজনকে শিগগির জি’জ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে সংশ্নিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। প্রসঙ্গত ২২ ফেব্রুয়ারি হযরত শাহজালাল আ’ন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে থাইল্যান্ডে পাড়ি জমানোর সময় পাপিয়া ও স্বামীসহ চারজনকে আটক করে র্যাব-১।

প্রাথমিক জি’জ্ঞাসাবাদ শেষে র্যাব সদস্যরা ফা’র্মগেটের ইন্দিরা রোডে পাপিয়া- মফিজুরের বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে অ’ভিযান চালিয়ে ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, পাঁচ বোতল বিদেশি মদ, পাঁচটি পাসপোর্ট, তিনটি চেক বই,

বিদেশি মুদ্রা ও বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি এটিএম কার্ড উ’দ্ধার করেন।এ সময় অ’বৈধ একটি বিদেশি পিস্তল এবং দুটি ম্যাগ’জিনে ২০ রাউন্ড গুলিও উ’দ্ধার করেন র্যাব সদস্যরা। এ ব্যাপারে পৃথক তিন মা’মলায় জিজ্ঞা’সাবাদের জন্য পিউ দ’ম্পতি ছাড়াও তাদের দুই সঙ্গী বর্তমানে ১৫ দিনের পু’লিশ রি’মান্ডে রয়েছেন।

হঠাৎ তেলাপোকা খুব বেড়ে গেছে? জেনে নিন তেলাপোকা তাড়ানোর কিছু ঘরোয়া উপায়

রে তেলাপোকার উপদ্রব খু্বই বিরক্তিকর। এটি শুধু বিরক্তিকরই নয়, বরং নানারকম অসুখের কারণও। বাজারে তেলাপোকা দূর করার জন্য নানা স্প্রে ও নানা ঔষধ পাওয়া যায়। কিন্তু সবসময় এই স্প্রে বা ঔষধ কাজ করে না। তবে তেলাপোকা তাড়ানোর জন্য ঘরোয়া কিছু উপায় রয়েছে।খুব সহজে দূর হবে ঘরের তেলাপোকা। তাহলে আসুন জেনে নেই কীভাবে তাড়াবেন ঘরের তেলাপোকা।

তেজপাতা–তেজপাতা তেলাপোকা দূর করতে সাহায্য করে।কয়েকটা তেজপাতা গুঁড়া করে নিন।যেসকল স্থানে তেলাপোকা আসতে পারে সেখানে তেজপাতার গুঁড়া রেখে দিন।তেলাপোকা তেজপাতার গন্ধ সহ্য করতে পারে না।এটি তেলপোকা মারবে না কিন্তু তেলপোকাকে ঘর থেকে দূরে রাখবে।

বেকিং সোডা ও চিনি–সমপরিমাণে বেকিং সোডা এবং চিনি মিশিয়ে নিন।এবার যেসব ঘরে তেলাপোকা আনা গোনা সেখানে ছিটিয়ে দিন।তেলাপোকা এটি খাওয়ার সাথে সাথে মারা যাবে।

শসা–শসা তেলাপোকা দূর করতে অনেক বেশি কার্যকরী।একটি অ্যালুমিনিয়াম ক্যানে শসার কিছু খোসা নিন।এবার এই ক্যানটি তেলপোকা আসার স্থানে রেখে দিন।দেখবেন তেলাপোকা উপদ্রব বন্ধ হয়ে গেছে।শসার খোসা অ্যালুমিনিয়ামের সাথে বিক্রিয়া ঘটিয়ে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে থাকে।যা তেলাপোকার মৃত্যু ত্বরান্বিত করে থাকে।

প্রেট্রোলিয়াম জেলি–একটি জারে প্রেট্রোলিয়াম জেলি নিন।এবার এতে কিছু ফলের খোসা যেমন আম, কলা, আপেল রেখে দিন।ঘরের যে জায়গা দিয়ে তেলাপোকা প্রবেশ করে সেখানে এই জারটি রেখে দিন।ফলের খোসার গন্ধ তেলাপোকাকে আকৃষ্ট করবে আবার প্রেট্রোলিয়াম জেলী তেলাপোকাকে জারের ভিতরে ঢুকতে বাঁধা দিবে।তেলাপোকা যখন জারের চারপাশে এসে জমে যাবে তখন স্প্রে বা সাবান পানি ছিটিয়ে দিন।দেখবেন তেলাপোকা এক নিমিষে দূর হয়ে গেছে।

গোল মরিচের গুঁড়া–একটি মগে এক লিটার পানি নিন এবং এতে একটি রসুনের কোয়া, একটি পেঁয়াজের পেস্ট এবং এক টেবিল চামচ গোল মরিচের গুঁড়া দিয়ে মিশিয়ে নিন।এবার এটি স্প্রে করে দিন সারা বাড়িতে বা যেসব জায়গায় তেলাপোকা বেশি আসে।দেখবেন তেলাপোকা আপনার বাসা থেকে দূর হয়ে গেছে।

সূত্র: যুগান্তর

Related posts

Leave a Comment